বাংলাদেশি SEO ফ্রীল্যান্সারদের প্রধান ৫ টি সীমাবদ্ধতা ও উত্তরণ এর উপায় (পর্ব-১)

প্রথমেই ওডেস্ককে ধন্যবাদ জানিয়ে ( মিনিমাম hourly rate চালু করায়) আমার প্রথম টিয়ুন শুরু করছি। এর ফলে যারা সত্যিকার এর যোগ্য তাদের প্রতি সুবিচার করা হয়েছে বলে আমি মনে করি। তবে যারা নতুন হিসেবে কেবল মাত্র ক্যারিয়ার শুরু করছেন বা এখনো তুলনামূলক দক্ষতা অর্জন করতে পারেননি তাদের জন্য আমার আজকের এই পোস্ট।

আমি ব্যক্তিগত ভাবে দীর্ঘদিন SEO- র সাথে জড়িত। সে হিসেবে আমার ব্যক্তিগত কিছু অভিজ্ঞতার আলোকে বাংলাদেশে SEO ফ্রীল্যান্সারদের কিছু সীমাবদ্ধতা তুলে ধরছি। আমার ধারণা যারা এই কাজের সাথে জড়িত তারাও বিষয় গুলো নিয়ে একমত হবেন। চলুন দেখা যাক বিষয় গুলো কি কি :

১। পর্যাপ্ত জ্ঞানের অভাবঃ

অনেককে দেখা যায় ডাটা এন্ট্রি কিংবা SEO দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করতে। একটা কথা মনে রাখবেন SEO মানেই কিন্তু শুধু লিঙ্ক বিল্ডিং নয়। আপনি যদি মনে করেন web2.0, bookmark, blog comment etc এগুলা মানেই শুধু SEO তাহলে ভুল করছেন। আপনাকে মার্কেট সম্পর্কে অনেক পড়াশুনা করতে হবে। অনেক খুঁটিনাটি বিষয় আছে যেগুলা সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকা জরুরি। এই প্রাকটিসটা অনেকের মধ্যে নাই বললেই চলে। অবশ্য এটাই স্বাভাবিক। কারণ buyer দের কাজ নিয়েই সারাক্ষন দৌড়ের উপর থাকতে হয়। এরপরে পড়াশুনার জন্য সময় বের করা যায় না। তবে অনেক SEO ব্লগ আছে যেখানে Search Engine Update, Algorithm etc এবং Modern day SEO নিয়ে আলোচনা হয়। ভেবে দেখুন ,আপনাকে কোন Buyer যদি জব interview তে জিজ্ঞেস করে যে সর্বশেষ Google update নিয়ে তুমি কি জানো তখন আপনি যদি বলতে না পারেন তাহলে সে ক্ষেত্রে জব পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক কমে যাবে। সুতরাং , পড়াশুনার কোন বিকল্প নেই। বাহিরের দেশে তারা SEO কে একটা আর্টের পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছে। যারা এখন ও web2.0, bookmark এর যুগ এ পরে আছেন তারা দ্রুত পিছনে পরে যাবেন। অনেক Buyer লিঙ্ক বিল্ডিং এর কাজ দেয়। দেখা যায় যে তার ওয়েবসাইট এ অনেক সমস্যা রয়ে গেছে যেগুলা solve না করলে আপনার লিঙ্ক বিল্ডিং কোন কাজে লাগবে না। একজন SEO হিসেবে আপনার দায়িত্ব Buyer কে এসব ভুল ধরিয়ে দেওয়া। তা না হলে পরবর্তীতে আপনাকে ওই Buyer ই blame করবে যে কোন লাভ হয় নাই। কিন্তু নিজে না জানলে অন্যকে গাইড করা অসম্ভব।  তাই পূর্ণাঙ্গ জ্ঞান থাকা জরুরি এবং এর জন্য পড়াশুনার বিকল্প নেই।

২ । ইংরেজি  জ্ঞান এর অভাবঃ  

এটি শুধু SEO এর ক্ষেত্রে না এবং সব কাজের ক্ষেত্রেই গুরুত্বপূর্ণ। তবে SEO তে আমি মনে করি অনেক বেশী প্রয়োজন এই দক্ষতা। কারণ SEO  কাজ করতে গেলে অনেক Content প্রয়োজন হয়। যেগুলা লিখতে গেলে অনেকটা ভালো পরিমাণ দক্ষতা থাকতে হয়। আপনি ভালো ইংরেজি না জেনে ও ভালো ডিজাইনার হতে পারবেন কিন্তু ইংরাজি দক্ষতা কম থাকলে SEO তে আপনাকে অনেক ভোগান্তি  পোহাতে হবে। আগামি পর্বে এর কিছু সমাধান শেয়ার করব।

৩। প্রয়োজনীয় Tools না থাকাঃ

আমি জানি না অন্যান্য সেক্টর এ টুল এর প্রয়োজনীয়তা কিরকম কিন্তু SEO  করতে গেলে এর কোন বিকল্প নেই। প্রতিটা Step এ অসংখ্য ফ্রী এবং প্রিমিয়াম টুল আছে। যেমন আপনি keyword research করতে যান সেখানে অনেক টুলস আছে। অনেকে শুধুমাত্র Adwords Keyword Planner use করে থাকেন। কিন্তু আমার মতে এটি মানসম্মত কোন টুল নয়। আপনাকে এর বাইরে অনেক টুল সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। যেমনঃ  Long tail Pro, Market samurai etc. তেমনি ভাবে, On page Analysis, Competitor Analysis , Rank Tracking থেকে শুরু করে মোটামুটি সব স্টেপ এই কোন না কোন টুল কাজে লাগেই। এগুলো আপনার কাজকে আরও বেগবান করবে এবং আপনি ক্রমে দক্ষতা অর্জন করবেন।

৪। পেশাদারি মনোভাব এর অভাবঃ

আমি oDesk এ অনেক কাজ পোস্ট করেছি। তবে প্রতিবারই তিক্ত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছি। দেখা যায় যে একটা কাজ এ মুহূর্তের মধ্যে শ খানেক বিড পরে গেছে কিন্তু কাজ দেওয়ার মত একজন ও নেই। আসল জব পোস্টিং এ কি চাওয়া হয়েছে এটি পড়ার মত ন্যূনতম সময়টুকু কেও ব্যয় করেন না। নতুনদের মাঝে এই প্রবণতা বেশী। এটি কোন দৌড় প্রতিযোগিতা নয় যে আগে বিড করলে আগে কাজ পাবেন। Fake ID র  কথা না হয় না ই বললাম। হ্যাঁ, এটা সত্য যে অনেক সময় নিয়ে প্রাসঙ্গিক কথা বলার পর ও দেখা গেল জব পাচ্ছেন না। তবে একটু ভেবে দেখুন, প্রথম ক্ষেত্রে আপনার সম্ভাবনা কিন্তু একদমই শূন্য, কিন্তু দ্বিতীয় ক্ষেত্রে আপনি কিন্তু অনেকটাই এগিয়ে। আমি নিজে ব্যক্তিগত ভাবে এরকম অনেক কাজ পেয়েছি এবং খুব ভালো rate এ।  Buyer রা কেও গাধা গরু না যে কিছু একটা লিখে দিলেই কাজ দিয়ে দিবে । তারা অনেক সময় ব্যয় করেন (যদিও সবাই না) review করতে গিয়ে। সুতরাং ঢালাও ভাবে সব কাজ এ বিড না করে ভেবে চিন্তে বুঝে শুনে বিড করুন।

৫। কোয়ালিটি Maintain না করাঃ

কাজ পাওয়ার আগে অনেকেই কম বেশী সত্য মিথ্যার আশ্রয় নেই। প্রথম প্রথম এরকম অনেকেই করে। কিন্তু কাজ পাওয়ার  পর সেটি যে করে দিতে হবে এই ব্যাপারে অনেকেই উদাসীন বা অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে যিনি লিঙ্ক বিল্ডিং করছেন তিনি মুখস্ত কিছু সাইটে গিয়ে কপি পেস্ট করছেন।  লিঙ্ক বিল্ডিং করতে গেলে অনেক গুলো জিনিস মাথায় রাখতে হয় । আপনার লিঙ্ক বিল্ডিং কি কাজে লাগছে সেটা কি কখন ও ভেবেছেন? যারা Complete SEO করেছেন তারা ভালো করে জানেন website Ranking এবং Driving Traffic একটা খুব বড় ফ্যাক্টর। যিনি শুধু লিঙ্ক বিল্ডিংই শিখেছেন তার পক্ষে কোয়ালিটি Maintain করা সম্ভব না। অনেক কাজে দেখবেন Buyer উল্লেখ করে দেয় যে , “I am looking for those who knows what they are doing” – সুতরাং কাজ এর কোয়ালিটি বজায় রাখতে Ranking factor নিয়ে ভালো ধারণা থাকা আবশ্যক।

মনে রাখবেন সকল SEO ই একজন লিঙ্ক বিল্ডার কিন্তু সকল লিঙ্ক বিল্ডার SEO Expert নয়।

আগামী পর্ব গুলোতে সমস্যা গুলোর সমাধানমূলক কিছু লিখা লিখব আশা করি। অনেক দীর্ঘ বয়ান এর প্রয়োজন। আশা করি সাথে থাকবেন 🙂